ইটাচুনা রাজবাড়ী Itachuna Rajbari | Suparna Ghosh | Meghbristi

Pinterest LinkedIn Tumblr +

পয়লা বৈশাখ এর আমেজ নিয়ে, বছরের একদম প্রাক্বালে স্বাপরিবারে ঘুরে এলাম ইটাচুনা রাজবাড়ি। ইট ও চুন দিয়ে নির্মিত বলে রাজবাড়িটির নাম, ইটাচুনা । এই পরিবারের আদি নিবাস ছিল, মহারাষ্ট্র। মহারাষ্ট্রের বর্গি সম্প্রদায়ের, শৈব মতে দীক্ষিত পরিবারটি বাংলায় এসে ধরমান্তরিত হন ইষ্ট ধর্মে এবং তারপর থেকে তাদের পদবী হয় ‘কুণ্ডু’। রাজবারির আকদম গায়ে পাবেন শিব মন্দির, ভিতরে নারায়ণ মন্দির ও একটি দুর্গা বেদিও রয়েছে।

মধ্য কতকালা থেকে মাত্র ৭৪ কিমি দূরে অবস্থিত এই ঐতিহাসিক সুদূর বিস্তৃত রাজপ্রাসাদ টি। যার আমেজ, রুপ, রস গন্ধ আজও অসামান্য ও অনবদ্য। মাত্র ২ ঘণ্টায় পৌঁছে যাওয়া যায় মহানগরীর কোলের কাছের এই সুন্দর পর্যটক কেন্দ্রটিতে। এখানে আসার সব থেকে সহজ উপায় হল রেলপথ। গন্তব্যের একদম নাকের ডগায় রইয়েছে খন্নান রেল স্টেশন।স্টেশন থেকে নেমে বাম হাতে অল্প কিছুদূর গেলেই দেখা মিলবে রাজবাড়ির। হাওড়া থেকে খুব সহজেই পেয়ে যাবেন, লোকাল ও কিছু দূরপাল্লার ট্রেন। এছাড়াও যেতে পারবেন বাস বা রেন্টেড কারে।

Share.

About Author

“মেঘ বৃষ্টি” আসলে আমার ডাইরির পাতা। কিছুটা কল্পনা, কিছুটা ছেলেমানুষি, কিছুটা অভিমান আর অনেকটাই স্মৃতি। ছোটবেলা থেকেই লিখতে ভালো লাগতো, ভাবতে ভালো লাগতো। ডাইরির পাতায় কত আঁকিবুঁকি, কত কাটাকুটি, কত দুষ্টুমি আছে। যতটা সম্ভব “মেঘ বৃষ্টি” তে তুলে ধরলাম।

Leave A Reply