একতরফা – সুপর্ণা ঘোষ

তারপর আস্তে আস্তে একদিন আমরা হারিয়ে যাব,মিশে যাব আছেনা অজানা মানুষের মাঝে।পাশ দিয়ে হেঁটে যেতে গিয়ে থমকে দাঁড়াবো,তোর শরীরের গন্ধ পেয়ে।ভেতরটা দুমড়ে মুচড়ে যাবে,তবুও পেছন ফিরে দেখবেনা।

যেদিন তোকে অন্যকারোর শরীরের সাথে মিশতে দেখেও হাসি মুখে বলেছিলাম ,তোর ভালথাকায় আমি ভালো আছি।ঠিক সেই দিনি আমি হঠাৎ বড় হয়ে গেছি।এখনো ভালোবাসি ,ভীষণ ভালোবাসি ,তবু পেছন ফিরে দেখবেনা।

তোর প্রাক্তন ,তোর বর্তমান,তোর ভালোলাগা,তোর ভালোবাসা,তোর দুঃখ,তোর রাগ সব সব আমি বুক পেতে গ্রহণ করেছি,কখন কি বুঝতে পেরেছিস আমি কি ভীষণ কষ্টে ছটপট করেছি প্রত্যেকটা রাত।নিজেকে খুঁজতে চেয়েছি তোর মধ্যে,একটু খানি ,এতটুকু নিজেকে পেতে চেয়েছিলাম।পাইনি ,তবুও ভালোবাসি,কিন্তু এর পেছন ফিরে দেখবেনা।

ভয় হয়,জানি তুই অন্য কারোর।তবুও চোখ দুটো সহ্য করতে পারবেনা।যদি ফিরে দেখি ,তুই আর তোর বর্তমান পাশা পাশি বসে, তোদের হাতে হাত ,চোখে চোখ,হঠাৎ তুই ওর কানের পাশের চুল সরিয়ে,গালের কাছে ঠোঁট ছুঁইয়ে বল্লি ,ভালোবাসি।সেই মুহূর্তে আমার সব মিথ্যে হয়ে যাবে,তাই পেছন ফিরে দেখবেনা।।

  • আবৃতিঃ সুপর্ণা ঘোষ
  • কবিতাঃ সুপর্ণা ঘোষ
★★ Please make a comment using Facebook profile ★★

About Author

“মেঘ বৃষ্টি” আসলে আমার ডাইরির পাতা। কিছুটা কল্পনা, কিছুটা ছেলেমানুষি, কিছুটা অভিমান আর অনেকটাই স্মৃতি। ছোটবেলা থেকেই লিখতে ভালো লাগতো, ভাবতে ভালো লাগতো। ডাইরির পাতায় কত আঁকিবুঁকি, কত কাটাকুটি, কত দুষ্টুমি আছে। যতটা সম্ভব “মেঘ বৃষ্টি” তে তুলে ধরলাম।

Leave A Reply